অতীতের সব মহামারি আবার ফিরতে পারে: সতর্ক করল ডব্লিউএইচও

বিজ্ঞাপন

অতিমারীর পর কি এবার একের পর এক মহামারী ফিরে আসছে গোটা বিশ্বেই? ফিরে আসতে চলেছে পোলিও, হাম, রুবেলা, কলেরা, ডিপথেরিয়া ও ডায়রিয়ার মতো ভয়ঙ্কর সংক্রামক ব্যাধিগুলি? বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, জাতিসংঘের অধীনস্থ ‘ইউনিসেফ’ এবং গরিব দেশগুলিতে টিকাকরণ কর্মসূচির তদারক সংস্থা ‘গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিন্স অ্যান্ড ইমিউনাইজেশন (গ্যাভি)’-এর সাম্প্রতিক যৌথ সমীক্ষা এই অশনি সংকেত দিয়েছে।

সমীক্ষা জানিয়েছে, বিশ্ব জুড়ে করোনা সংক্রমণ ও লকডাউনের জেরে টিকাকরণ কর্মসূচি দারুণভাবে ব্যাহত হওয়ার ফলে যে সব রোগ হারিয়ে গিয়েছিল, তাদের ফের জোরালো ভাবে ফিরে আসার উপক্রম হয়েছে। বিপন্ন হয়ে পড়েছে অন্তত ৮ কোটি শিশুর জীবন। এশিয়ায় ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, বাংলাদেশ ও আফ্রিকায় উগান্ডা, নাইজিরিয়া, চাঁদ, ইথিওপিয়া, বুরুন্ডি, ক্যামেরুনসহ বিশ্বের ১২৯টি দরিদ্র ও অল্প আয়ের দেশে। এই শিশুদের বয়স ১ বছরেরও কম। হাম, রুবেলা, মাম্পসে টিকাকরণে যথেষ্টই ব্যাঘাত ঘটেছে ভারতে লকডাউনের জন্য দেশে দেশে টিকাকরণ কর্মসূচি পুরোপুরি থমকে যাওয়ায় অন্তত ৮ কোটি শিশুর পোলিও, হাম, রুবেলা, কলেরা, ডিপথেরিয়া, ডায়রিয়াসহ নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রবল হয়ে উঠেছে।

‘ইন্টারন্যাশনাল পিডিয়াট্রিক অ্যাসোসিয়েশন (আইপিএ)’-এর কার্যনির্বাহী কর্মকর্তা, শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ নবীন ঠাকার বলছেন, “ভারতের জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের তথ্যই জানাচ্ছে, ২০১৯-এর মার্চের তুলনায় এ বছরের মার্চে হাম, রুবেলা, মাম্পসের টিকাকরণের কাজ ৬৯ শতাংশ কম হয়েছে।’’ হামের টিকা বন্ধ ভারতসহ ২৭টি দেশে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এবং ইউনিসেফ-এর যৌথ সমীক্ষার বক্তব্য, ১২৯টি গরিব ও অল্পবিত্তের দেশের মধ্যে কম করে ৬৮টি দেশে চিকিৎসক বা টিকাকরণ কর্মসূচির মাধ্যমে টিকা দেওয়ার কাজে যথেষ্টই ব্যাঘাত ঘটেছে করোনা সংক্রমণ ও লকডাউনের জেরে। যাতে হাম না হয়, সে জন্য এক বছরের কমবয়সিদের সার্বিক ভাবে টিকা দেওয়ার কাজ এই সময়ে পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গিয়েছে ২৭টি দেশে। যাদের মধ্যে অন্যতম আফ্রিকার দু’টি দেশ- চাদ ও ইথিওপিয়া।

  • অতিমারীর চেয়েও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠবে ওই সব মহামারী!

আর সদ্যোজাতদের পোলিও খাওয়ানোর কাজ বন্ধ হয়ে গিয়েছে ৩৮টি দেশে। যাদের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান ও গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের মতো দেশগুলি। বিজ্ঞানী ও টিকা বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, এর ফলে, আগামী দিনে হাম, রুবেলা, কলেরা, ডায়রিয়া ও ডিপথেরিয়ার মতো বিভিন্ন সংক্রামক রোগে আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা কোভিড-১৯ ভাইরাসের দৌলতে আক্রান্তের সংখ্যাকেও হার মানাবে।সংক্রামক রোগগুলির মধ্যে প্রথমেই যে নামটি আসে, তা হল, পোলিও। কোটি কোটি শিশুকে টিকাকরণ কর্মসূচির আওতায় আনার ফলে ৭ বছর আগে পোলিও রোগটি ভারত থেকে এক রকম নির্মূলই হয়ে গিয়েছিল। লাগাতার টিকাকরণ কর্মসূচির দৌলতে ২০১৮ এবং ২০১৯-এ ভারতে দ্রুত কমেছিল হাম, রুবেলায় আক্রান্তের সংখ্যাও।

  • হাম, রুবেলা, পোলিওর ক্ষয়-খতিয়ান

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ-এর সমীক্ষা রিপোর্ট জানাচ্ছে, গত বছর ভারতসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্য ১১টি দেশে হামে আক্রান্তের ঘটনার সংখ্যা মোট যত ছিল (১৯ হাজার ৭২৬টি), এ বছরের প্রথম ৪ মাসেই সেই সংখ্যাটা তার সাড়ে তিন ভাগের এক ভাগ হয়েছে। নবীন ও অরুণ বলছেন, “বছরের আরও ৮ মাস বাকি। করোনার জেরে প্রায় বছরের শুরু থেকেই ভারতে বন্ধ হয়েছে বা ব্যাঘাত ঘটেছে টিকাকরণ কর্মসূচিতে। একই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্য আরও ১০টি দেশে। ফলে, এ বার ভারত-সহ ওই ১১টি দেশে হামে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা বাড়ার আশঙ্কা জোরালো হয়েছে।’’ সমীক্ষা রিপোর্ট এও জানাচ্ছে, গত বছর ওই ১১টি দেশে রুবেলায় আক্রান্ত হওয়ার যতগুলি ঘটনা জানা গিয়েছিল (৪ হাজার ৩৬৩টি), এ বছরের প্রথম ৪ মাসে সেই সংখ্যাটা দৃশ্যত কম (৫১১টি) হলেও জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি ও মার্চে ঘটনার সংখ্যা পৌঁছেছে ৫০৯টিতে।

বিজ্ঞাপন

Source আনন্দবাজার।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status