আগষ্টেই আসছে করোনার প্রথম ভ্যাকসিন!

বিজ্ঞাপন

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। ক্রমশই দীর্ঘ হচ্ছে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত এবং সংক্রমিতের সংখ্যা। গত একদিনেও বিশ্বব্যাপী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

এমন অবস্থায় বিজ্ঞানীরা চেষ্টা করে যাচ্ছেন এর প্রতিশেধক আবিষ্কার করার জন্য। যা দিয়ে হয়তো এই ভাইরাসের বন্ধ দরজা খোলা যাবে।  এরই মধ্যে সুখবর দিল রাশিয়া। বিশ্ব প্রথম করোনা ভ্যাকসিন পেতে যাচ্ছে ১২ আগস্ট, এমনটাই জানালেন রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

শুক্রবার (৭ আগস্ট) একথা জানিয়েছেন সে দেশের উপস্বাস্থ্যমন্ত্রী ওলেগ গ্রিডনেভ। তিনি বলেন, সাফল্যের সঙ্গে এটি লঞ্চ করা হলে এটিই হবে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন। রাশিয়াতেই তৈরি হয়েছে এই ভ্যাকসিন। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছে গামালেয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট।

মন্ত্রী বলেন, চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি ও বয়স্ক লোকদের আগে এই ভ্যাক্সিন দেওয়া হবে।

আরও জানানো হয়, গামালেয়া ভ্যাকসিন শর্তসাপেক্ষে আগস্টে নথিভুক্ত করা হচ্ছে অর্থাৎ ব্যবহারের জন্য অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। তবে এর পাশাপাশি ভ্যাকসিনটির তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজও চলবে। ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল যতদিন না সম্পূর্ণ হচ্ছে ততদিন তা শুধুমাত্র চিকিৎসকরাই সেটা নিয়ন্ত্রণ করবে।

এর আগে রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাশকো জানিয়েছিলেন, মস্কোর তরফ থেকে পরিকল্পনা করা হয়েছে যে, অক্টোবরেই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। ম্যাস ভ্যাকসিনেশন অর্থাৎ বহু মানুষকে একসঙ্গে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা তৈরি করা হচ্ছে।

যদিও বিজ্ঞানী এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেছে তাড়াহুড়া করে ভ্যাকসিন বের করার ব্যাপারে। তারা চাইছেন, নিরাপত্তা এবং কার্যক্ষমতার ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়ে ব্যবহারের জন্য অনুমোদন করা উচিত হবে না।

রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (আরডিআইএফ) প্রধান ক্রিমিল দিমিত্রিভ আগেই জানিয়েছিলেন, প্রথম দেশ হিসেবে রাশিয়া তাদের করোনা টিকা বাজারে আনবে। এ ব্যাপারে তিনি বলেছিলেন, স্পুতনিকের মহাকাশ যাত্রা দেখে মার্কিনীরা যেমন অবাক হয়েছিল। একই ঘটনা ঘটবে করোনা টিকার ক্ষেত্রেও। বিশ্ববাসী অবাক হয়ে রাশিয়ার সাফল্য দেখবে। সূত্র : ব্লুমবার্গ রিপোর্ট

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status