করোনায় ৬ মাসে চারবার বেড়েছে স্বর্ণের দাম

বিজ্ঞাপন

স্বর্ণ আমদানিতে শুল্ক কমানোর পর এবার বাজেটে প্রত্যাহার করা হয়েছে মূল্য সংযোজন কর ভ্যাট। তবে এর কোন প্রভাব নেই বাজারে। উল্টো করোনাকালেও লাফিয়ে বাড়ছে স্বর্ণের দাম।

চাহিদা কম থাকা অবস্থায় এই দাম বৃদ্ধিকে অযৌক্তিক বলছেন গ্রাহকরা। তবে ব্যবসায়ীদের দাবি, এতে তাদের ভূমিকা নেই। স্বর্ণের দাম নিয়ন্ত্রণে সক্রিয় আন্তর্জাতিক চক্র।

চলতি বছরেই ৬ মাসে দাম বেড়েছে চারবার। শেষ ধাপে ভরিতে বেড়েছে প্রায় ৬ হাজার টাকা। জানুয়ারির তুলনায় ১০ হাজার ৬৭২ টাকা বেশিতে বিক্রি হচ্ছে প্রতি স্বর্ণ। করোনা প্রভাবের মধ্যেও দাম বৃদ্ধির বিষয়টি অনেকটাই অজানা গ্রাহকদের কাছে।

লকডাউনের মধ্যে এক দফা বাড়ে স্বর্ণের। তবে শেষ দফায় দাম বৃদ্ধিতে কমেছে বিক্রির পরিমাণ। বিক্রেতারা বলছেন, এমনিতেই করোনার ভয়ে অনেকে বের হচ্ছে না ঘর থেকে। যা দু’একজন আসছেন তারাও দাম শুনে ফিরে যাচ্ছেন।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, করোনার প্রভাবে বিনিয়োগের জায়গা কমে যাওয়ায় অনেকেই এখন স্বর্ণ কিনে মজুদ করছেন যে কারণে বাড়ছে দাম।

ব্যবসায়ী নেতাদের দাবি, স্বর্ণের দাম নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি তাদের হাতে নেই। এটি নিয়ন্ত্রণ করে আন্তর্জাতিক চক্র। দাম বৃদ্ধিতে তারা নিজেরাও ক্ষতিগ্রস্ত।

আমদানি পর্যায়ে শুল্ক প্রত্যাহারে অনেকেই স্বর্ণ আমদানিতে আগ্রহী হচ্ছেন। সরাসরি আমদানি শুরু হলে আন্তর্জাতিক বাজারের চেয়ে ভরিতে অন্তত ৫ হাজার টাকা কমানো সম্ভব হবে বলে জানায় ব্যবসায়ী নেতারা।


সংবাদ২৪/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status