কাঁঠালের স্বাস্থ্য উপকারীতা

বিজ্ঞাপন

এমন সময়ে আপনি কোনও ফলের দোকানের সামনে দিয়ে যাচ্ছেন অথচ দোকানে বিশাল আকারের কাঁঠাল সাজিয়ে রাখা নেই এটা বিশ্বাস করা কষ্ট। কাঁঠাল বাংলাদেশি মানুষের প্রিয় ফল, এজন্যই হয়তো একে ফলের রাজাও বলা হয়। কাঁঠালের মিষ্টি গন্ধ পুরো গ্রীষ্মকালে আমাদের মোহিত করে রাখে।

তবে শুধু স্বাদের কথা নয়, কাঁঠালের রয়েছে বিভিন্ন গুনাগুন। কাঁঠাল কিছু কিছু রোগে মহৌষধের মতো কাজ করে। আসুন জেনে নেওয়া যাক কাঁঠালের স্বাস্থ্য উপকারীতা-

১. কাঁঠালে চর্বির পরিমাণ একেবারেই কম। তাই খা্ওয়ার পর ওজন বৃদ্ধির আশঙ্কা কম।

২. ১০০ গ্রাম কাঁঠালে পটাশিয়ামের পরিমাণ ৩০৩ মিলিগ্রাম। পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

৩. কাঁঠালে প্রচুর ভিটামিন এ আছে যা রাতকানা রোগ প্রতিরোধ করে।

৪. কাঁঠালের অন্যতম উপযোগিতা হল ভিটামিন সি। প্রাকৃতিকভাবে মানবদেহে ভিটামিন ‘সি’ তৈরি হয় না। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি দাঁতের মাড়িকে শক্তিশালী করে ভিটামিন ‘সি’।

৫. কাঁঠালে বিদ্যমান ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস- আলসার, ক্যানসার, উচ্চ রক্তচাপ এবং বার্ধক্য প্রতিরোধে সক্ষম।

৬. কাঁঠালে আছে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আমাদের দেহকে ক্ষতিকর ফ্রির‌্যাডিকেলস থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও আমাদেরকে সর্দি-কাশি রোগের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

৭. টেনশন এবং নার্ভাসনেস কমাতে কাঁঠাল বেশ কার্যকরী। বদহজম রোধ করে কাঁঠাল।

৮. কাঁঠালে আছে বিপুল পরিমাণে খনিজ উপাদান ম্যাঙ্গানিজ যা রক্তে শর্করা বা চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

৯. কাঁঠালে বিদ্যমান ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়ামের মতো হাড়ের গঠন ও হাড় শক্তিশালীকরণে ভূমিকা পালন করে।

১০. কাঁঠালে আছে ভিটামিন বি৬ যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। এতে থাকা আয়রন দেহের রক্তাল্পতা দূর করে।


সংবাদ২৪/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status