কালারমারছড়ায় খাওয়ার অনুপযোগী ডাব্লিউএফপির চাল বিতরণ

বিজ্ঞাপন

মহেশখালী প্রতিনিধি: মহেশখালীর কালারমারছড়ায় গরীব অসহায় হত-দরিদ্র পরিবারের মাঝে অস্ট্রেলিয়ান এইড এর সহায়তায় ডাব্লিউএফপি’র বিতরণকৃত চাউল খাওয়ার অনুপযোগী নিম্ন মানের বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার (১২ আগস্ট-২০২০) কালারমারছড়া ইউনিয়নের মাইজপাড়া মাদ্রাসায় হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে চাউল বিতরণ করেন ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম- ডাব্লিউএফপি। অস্ট্রেলিয়ান এইড এর সহায়তায় বিতরণকৃত এই চাউল অত্যন্ত নিম্ন মানের ও খাওয়ার অনুপযোগী বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগী আবুল বশর জানান, ডাব্লিউএফপি’র দেওয়া পূর্বের চাউল মানসম্মত ও খাওয়ার উপযুক্ত ছিলো। কিন্তু এবারে দেওয়া চাউল গুলোতে চাউলের চেয়ে পাথর বেশি। অত্যন্ত নিম্ন মানের খাওয়ার অনুপযোগী চাউল দিয়ে হতদরিদ্রের সাহায্যর নামে গরীবদের সাথে মশকরা করছে ডাব্লিউএফপি।

ইউনুছখালী এলাকার তৈয়বা বেগম জানান, এই চাউল অত্যন্ত নিম্ন মানের এবং অনেক পাথরও রয়েছে। চাউলের পরিমাণেও রয়েছে কম। চাউলের বস্তার গায়ে পরিমাণ ৩০ কেজি উল্লেখ থাকলেও কোনো বস্তায় তার পরিমাণ ২৪ কেজি। চাউল ডিস্টিভিউশনের দায়িত্বে থাকা সাদিয়া নামের এক মহিলা হতদরিদ্র ভুক্তভোগীদের থেকে ৩’শ টাকা করে নেওয়ার অভিযোগও করেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন।

এই বিষয়ে চাউল বিতরণের দায়িত্বে থাকা সাদিয়া খানমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ডাব্লিউএফপি’র এই চাউল নিম্ন মানের কেন এবং খাওয়ার অনুপযোগী কেন এই বিষয়ে তারা কাউকে জবাবদিহিতা করতে বাধ্য নয়। করোনাকালিন সময়ে হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা অস্ট্রেলিয়ার এইড এর সহায়তায় চাউল দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন মহিলাদের থেকে ৩’শ টাকা করে নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ফোনের লাইন সংযোগ কেটে দেন।

#সংবাদ২৪/কাব্য সৌরভ/এইচএ 

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status