ডা. জাফরুল্লাহর শারিরিক অবস্থার অবনতি

বিজ্ঞাপন

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) পরবর্তী সেকেন্ডারি নিউমোনিয়ায় ভুগছেন। দীর্ঘ একমাস রোগে ভোগায় তার শরীর দুর্বল। স্বরতন্ত্রের প্রদাহের কারণে তার কথা বলা নিষেধ।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক এম আবদুল্লাহ সোমবার সকালে জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে দেখতে এসেছিলেন।

করোনাভাইরাসের কিটের অনুমোদন না পাওয়ায় বিষণ্ণ গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি।

তবে ওষুধ প্রশাসন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল কিট উন্নয়নে সহযোগিতা করবে জানতে পেরে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কিটের উন্নয়নে কাজ করছে। উন্নয়নকৃত কিট অনুমোদন পাবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। বিএসএমএমইউ এন্টিজেন কিট পরীক্ষার কাজ শুরু করবে বলেও মনে করেন তিনি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র শিগগিরই কভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য আইসিইউ চালু করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। অসুস্থতার মধ্যেও অর্থ জোগাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ডা. জাফরুল্লাহ। হাসপাতালে বসেই গণস্বাস্থ্যের সকল প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করছেন।

গত ২৫ মে করোনায় আক্রান্ত হন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। গণস্বাস্থ্য উদ্ভাবিত কিটেই তার করোনা ধরা পড়ে বলে জানান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসকরা। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষাতেও তিনি করোনা পজিটিভ হন। এরপর ১৩ জুন তিনি করোনা থেকে সেরে উঠেন।


সংবাদ২৪/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status