দাড়িতে গোবর মাখিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বৃদ্ধকে নির্যাতন

বিজ্ঞাপন

ভোলায় চারা রোপণকে কেন্দ্র করে এক বৃদ্ধকে নির্যাতন করে রশি দিয়ে খুটির সাথে বেঁধে গোবর (গরুর মল) খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও দাঁড়িতে গোবর মেখে ঘণ্টার পর ঘণ্টা বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার রাতে নির্যাতনের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে ভাইরাল হলে রাতেই পুলিশ ঘটনার মূল হোতা ভগ্নিপতি রশিদ মল্লিককে (৫০) গ্রেফতার করে। শনিবার এ ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে গুপ্ত মুন্সি গ্রামে।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, রফিকুল ইসলামের ছেলে মুনসুর (৫৩) নামে ওই বৃদ্ধকে রশি দিয়ে খুঁটির সাথে হাত বেঁধে রশিদ মল্লিকের নির্দেশে আরসাদ মল্লিক (২৭) নামে এক যুবক একটি লাঠির মাথায় গোবর নিয়ে খাওয়ান ও বৃদ্ধের দাঁড়িতে সেই গোবর মেখে দেন এবং মারধর করা হয়। নির্যাতনের নেতৃত্ব দেওয়া রশিদ মল্লিক মুনসুরের আপন ভগ্নিপতি ও যুবক আরসাদ নাতনি জামাই।
এ ঘটনাটি গত ২৫ জুলাই ঘটলে প্রথমে নির্যাতিত মুনসুর ভয়ে থানার দারস্থ হননি। কিন্তু ওই ঘটনার ১৪ দিন পর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরালের পর রশিদ মল্লিককে শুক্রবার রাতে আটক করা হয়।

এ ব্যাপারে ভোলা থানার ওসি এনায়েত হোসেন জানান, শনিবার সকালে মুনসুর বাদী হয়ে নাতনি জামাই আরসাদকে প্রধান আসামি ও রশিদ মল্লিককে দ্বিতীয় আসামি করে ৪ জনের বিরুদ্ধে ভোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং-১৪। মামলায় ঘটনার মূল হোতা রশিদ মল্লিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status