নিরবে কাশ্মীরে দখলারিত্ব পাকাপোক্ত করছে ভারত

বিজ্ঞাপন

করোনা মহামারীর মধ্যেও ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে প্রায় প্রতিদিনই সেনা অভিযান, পাড়া মহল্লা ঘেরাও করে ঘরে ঘরে তল্লাশি, নারী নির্যাতনসহ গ্রেফতার অব্যাহত রয়েছে।

বিগত কয়েক মাসে একদিকে প্রতিবেশী পাকিস্তান, নেপালও ও সর্বশেষ চীনের সাথে সীমান্ত উত্তেজনা চলছে অন্যদিকে কাশ্মীরীদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের মাত্রাও বেড়েছে।

সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে জানা যায়, শ্রীনগর, বাদগাম, গান্দেরবাল, ক‚পওয়ারা, বান্দীপুর, বারামুল্লাহ, সোপিয়ান, পুলওয়ামা, ইসলামাবাদ, কুলগাম, পুঞ্চ , কিস্তোয়ার, দোদা, রাজৌরী , রামবান এবং জম্মু জেলায় ভারতীয় নিরাপত্তা বাহীনি ঘেরাও-তল্লাশি পরিচালনা করছে। এসব এলাকার বাসিন্দারা গনমাধ্যমকে জানিয়েছেন,নিরাপত্তা বাহিনীর লোকজন তাদের বাড়ি-ঘরে যখন তখন ঢুকে পড়ছে, মালপত্র তছনছ করছে, বাড়ির লোকজনের সাথে দুর্ব্যবহারসহ যুবকদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে।

কাতার ভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশনের খবর, কাশ্মিরে সশস্ত্র জঙ্গি তৎপরতা দমনের নামে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী গত এপ্রিল মাসে অন্ততঃ ২৫ যুবককে হত্যা করেছে। ভারতীয় পুলিশ স্বীকার করেছে, এপ্রিল মাস পর্যন্ত এরকম ৭৩ জন ‘জঙ্গিকে’ হত্যা করা হয়েছে। এ সময় স্বাধীনতাকামী যোদ্ধাদের হাতে ভারতীয় বাহিনীর ডজন খানেক সৈন্যও নিহত হয়েছে।

স্থনীয় পুলিশের দাবি, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে তারা অন্ততঃ ছয় শীর্ষস্থানীয় গেরিলা কমান্ডারসহ ২২ জনকে হত্যা করেছে।

গত আগষ্ট মাসে ভারত তার সংবিধান সংশোধন করে বিপুল সংখ্যক সেনা পাঠিয়ে কাশ্মীরিদের দমন করার পাশাপাশি সেখানে তার অবস্থান পাকাপোক্ত করার লক্ষ্যে সম্প্রতি একটি আইন পাস করেছে। যাতে বাইরের লোক সেখানে জমি কিনতে পারে বা স্থায়ীভাবে বসবাস করতে পারে।

 

বিজ্ঞাপন

Source কাশ্মীর টাইমস

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status