নেত্রকোনার দুর্গাপুর কলমাকান্দা সংযোগ সড়কে ভোগান্তি চরমে

বিজ্ঞাপন

নেত্রকোনার দুর্গাপুর কলমাকান্দার প্রায় ২৪ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক নির্মান কাজের মেয়াদ পেরিয়ে গেলেও কাজ শেষ না হওয়ায় ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ। কাজের নামে প্রায় অর্ধেকেরও বেশি বিল উঠানোও হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। অথচ সড়কে খানা খন্দ থেকে গর্তগুলো এখন পুকুরে পরিণত হয়েছে।

চরম ভোগান্তির শিকার হয়ে এলাকাবাসী এ নিয়ে ইতিমধ্যে মানববন্ধনও করেছে।

এদিকে নেত্রকোনা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান জানান, বৃষ্টি বাদল শেষ হলেই বাকি কাজ সম্পন্ন করা হবে। তবে আর বেশি কাজ বাকী নেই। অল্পই রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে ২৪.২০৮ কিলোমিটার দূর্গাপুর কলমাকান্দা সড়কের তিনটি প্যাকেজে মোট ২৩,৪৬,৬৬,৩৭৯ টাকা প্রাক্কলন ব্যায়ে কাজের টেন্ডার হয়। তারমধ্যে ৫ জুলাই ডলি কনষ্টাকশন নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ২২,৮৯,০৮৮৬৫ টাকায় (২২ কোটি ৮৯ লক্ষ ৮ হাজার ৮৬৫) চুক্তিবদ্ধ হয়ে ৫ আগস্ট কাজ শুরু করে।

হিসেব মতে ২০১৯ সনের মে মাসে কাজ শেষ করার কথা থাকলেও পেরিয়ে গেছে ২০২০ সনেরও জুলাই মাস। এদিকে ইতিমধ্যেই প্রথম প্যাকেজের (৯.৮৪০ মিটার) সড়কে ৮,৭৭,২৩,২৬০ টাকার মধ্যে ৪,২৩,৯২০০০ টাকা উত্তোলন করা হয়ে গেছে। দ্বিতীয় প্যাকেজেও (৭০০০ মিটার) সড়কে ৭,১৪,৬২,৯৯৯ টাকার মধ্যে ৬,৯৭,২২৬০৪ টাকা উত্তোলন কার হয়। বাকী তৃতীয় প্যাকেজেও (৭.৩৬৪ মিটার) সড়কে ৬,৯৭,২২,৬০৪ টাকার মধ্যে ৩,৯৭,৮৮০০০ টাকা উত্তোলন করা হয়। অর্থাৎ চুক্তির মোট ২২,৮৯,০৮৮৬৫ টাকার মধ্যে ১৪,৮১,৮১০০০ টাকাই উত্তোলন করা হলেও সড়ক যেনো মরণ ফাঁদই রয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, পুরো সড়কের বেশির ভাগ এলাকাই এখনো মাটি আর সুকড়ী ফেলা। তার মধ্যে খানা খন্দগুলো বড় হতে হতে এখন পুকুরে রূপ নিয়েছে। যেগুলোতে প্রতিদিন ঘটছে ছোট বড় দূর্ঘটনা। নেত্রকোনা কলমাকান্দা সড়ক বন্ধ থাকায় মানুষ ঢাকা ময়মনসিংহ নেত্রকোনায় কলমাকান্দা থেকে এই সড়টিই ব্যাবহার করছে। এটি বর্তমানে মহা সড়কে পরিণত হয়েছে। কিন্তু এই সড়কে অর্ধেক কাজ করে রেখে মানুষকে আরো ভোগান্তিতে ফেলেছে।

দূর্গাপুর উপজেলার পৌর শহরের ২ নং ওর্য়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি সিরাজ মিয়া সহ ভুক্তভোগিরা জানান, এসব খানাখন্দে গাড়ি পড়ে গিয়ে ছোট-বড় দূর্ঘটনার পাশাপাশি বিভিন্ন গাড়ি হঠাৎ আটকে বিকল হয়ে যাচ্ছে। অনেকেই ইতিমধ্যে মারা গেছেন আবার অনেকইে জীবিত আছেন পঙ্গু হয়েই। তাই দ্রুত সড়কটি সংস্কারের দাবি জানান তারা। তবে কথা বলতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কোন নাগাল পাওয়া যায়নি।


সংবাদ২৪/নেত্রকোনা/হুমায়ুন/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status