পরিবারের ৫ সদস্যেরই প্রাণ গেল বাসের নিচে

বিজ্ঞাপন

সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলায় যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ সময় একজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) ভোরে ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর এলাকার তানপুরে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।আহত ব্যক্তিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা সবাই প্রাইভেটকারের যাত্রী। তারা হলেন, মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের দিরাই সেমাচর গ্রামের স্বপন কুমার দাস ও তার স্ত্রী লাভলী রানী দাস এবং তাদের তিন সন্তান। স্বপন কুমার দাস শ্রীমঙ্গলের রাজনগর ব্র্যাক ব্যাংকের ম্যানেজার ছিলেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তামাবিল হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম বলেন, ঢাকা থেকে সিলেটগামী প্রাইভেটকারের সঙ্গে কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট বাসের সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। তারা ঢাকা থেকে সিলেটে গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন। বাসটি জব্দ করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি মাইনুল ইসলাম বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সিলেট থেকে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া কুমিল্লা ট্রান্সপোর্টের একটি বাস ও ঢাকা থেকে সিলেটগামী একটি প্রাইভেটকারের লামা তাজপুরের তানপুর এলাকায় সংঘর্ষ হয়। এ সময় বাসের নিচে ঢুকে যায় প্রাইভেট কার। সঙ্গে সঙ্গে প্রাইভেটকার দুমড়েমুচড়ে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারের পাঁচ যাত্রী নিহত ও একজন আহত হন।

#সংবাদ২৪/সিলেট/ডিসি/এমকে

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status