পুকুরে মিলল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বিমানের বিধ্বস্ত অংশ

বিজ্ঞাপন

লালমনিরহাটে একটি পুকুর খুঁড়তে গিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন একটি যুদ্ধ বিমানের বিধ্বস্ত অংশ উদ্ধার করেছে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসসহ বিমান বাহিনী সদস্যরা। এ সময় বেশ কিছু গুলি উদ্ধার করেন তারা।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের গুড়িয়াদহ গ্রামে এ অভিযান পরিচালনা করেন বিমান বাহিনী, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। তারা দাবি করেছেন উদ্ধার করা বস্তুগুলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন একটি যুদ্ধ বিমানের ধ্বংসাবশেষ।

এর আগে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের গুড়িয়াদহ দাড়ারপাড় গ্রামের রেজাউলের পুকুর খনন করতে গিয়ে তা দৃশ্যমান হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নিজের জমিতে পুকুর খনন শুরু করেন গুড়িয়াদহ দাড়ারপাড় গ্রামের রেজাউল। খননের এক পর্যায়ে শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে একটি বিমানের পেছনের অংশের ধ্বংসাবশেষ দেখতে পান শ্রমিকরা। এ সময় স্থানীয়দের খবরে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জায়গাটি দখলে নিয়ে খনন কাজ বন্ধ করে দেন। এরপর সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোতে খবর পাঠায় পুলিশ।

শনিবার (১৭ অক্টোবর) সকালে বিমান বাহিনী লালমনিরহাট ইউনিট, লালমনিরহাট ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ যৌথভাবে বিমানটির উদ্ধারে খনন কাজ শুরু করে। এরই মাঝে বিমানের ধ্বংসাবশেষ থেকে পাইলটের ব্যবহৃত আংটি, বেশ কিছু গোলা বারুদ উদ্ধার করা হয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা দাবি করেন। ধারণা করা হচ্ছে ১৯৪৪/৪৭ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ব্যবহৃত মার্কিন যুদ্ধ বিমান এটি। মৃত পাইলটের ব্যবহৃত আংটিও উদ্ধার করা হয়েছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত লালমনিরহাট বিমান বাহিনীর ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাসুদ বলেন, স্থানীয়দের খবরে খনন করে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। উদ্ধার শেষ হলে যাবতীয় তথ্য তুলে ধরে প্রেস ব্রিফিং করা হবে। তবে এটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্যবহৃত মার্কিন যুদ্ধ বিমান বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম জানান, বিমান বাহিনীর নেতৃত্বে যৌথভাবে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। তবে এসব উদ্ধারকৃত যুদ্ধ বিমানের তথ্য পরে জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status