বছরে একবারই মাংস খেতে পারেন তারা!

বিজ্ঞাপন

ঈদ আসলেই মহামারির মধ্যেও আমাদের আয়োজনের শেষ থাকে না। আর কোরবানির ঈদ উদযাপনের জন্য আমরা যখন আয়োজনের প্রতিযোগিতা করি তখন কিছু মানুষ এক মুঠো মাংসের অপেক্ষায় বসে থাকে। সে মাংসই তাদের ঈদের খাবার।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক জরিপ বলছে বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বের সবচেয়ে কম মাংস খান। গড়ে একজন মানুষ সারা বছরের সর্বোচ্চ ৪ কেজি মাংস খায়। যেখানে উন্নত দেশের মানুষ ৫৫ কেজি মাংস খায় বছরে। এই গড় হিসেবে বাংলাদেশের এমন চিত্র হলে বাস্তবে মাংস না খেয়ে থাকা মানুষের সংখ্যা কত হতে পারে?

এই সংখ্যা কোটির ঘরে। সারা বছর তারা ভাল খাবার চোখে দেখে না। আর গরুর মাংস তো তারা কল্পনায়ও আনতে পারে না। কোরবানির ঈদে তাই তারা সদাশিব বেরিয়ে পড়ে মাংসের সন্ধানে। বছরের এই একটা সময় তারা পেট ভরে দুবেলা মাংস খেতে পারে। তারপর আরেক ঈদের অপেক্ষায় কেটে যায় বছর।

রাজধানীসহ সারা দেশে নিম্ন আয়ের এই মানুষরা চরম পুষ্টিহীনতা ও খাদ্য সংকটে ভুগেন। তাদের কাছে ভাল খাবারের আয়োজন মানে বিশেষ কোনো দিবসের অপেক্ষা। তাও তারা হাত চেয়ে থাকে উচ্চবিত্তের।

ঈদের সকাল হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত এই মানুষরা মাংস সংগ্রহ করেন পায়ে হেটে। শহুরে বাসিন্দাদের বাসার গেটে দাঁড়িয়ে থাকেন সামান্য মাংসের জন্য। সারা দিনের সংগৃহীত মাংস নিয়ে সন্ধ্যায় ঘরে ফিরেন তারা। সে মাংস রান্না করে একদিনের বিলাসী ভোগ তাদের।

শনিবার (১ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কারওয়ান বাজারের কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ ধরে শিশু, নারী-পুরুষ, তরুণ-তরুণী, বৃদ্ধাদের প্রায় ১৫ জনের একটি দল এগিয়ে যাচ্ছিল। তাদের উদ্দেশ্য, কোরবানির মাংস সংগ্রহ করা। সেই মাংসে হবে তাদের ঈদুল আযহা উদযাপন।

তাদের মধ্যে সুমী ও সূর্যবান নামে দুজন নারী জানান, তেজগাঁওয়ের একটি কলোনি থেকে তারা সবাই এসেছেন। তারা যাচ্ছেন রাজধানীর বাংলামোটর এলাকার দিকে। সেখানে কোরবানির মাংস বিতরণ করা হয়। সেই মাংস তারা পরিবারের জন্য সংগ্রহ করবেন।

আজ ঈদের দিন সকালে কী খেয়েছেন জানতে চাইলে তাদের একজন বলেন, ‘আমরা কিছুই করতে পারি নাই।’ আরেকজন বলেন, ‘কিছুই করি নাই। ভাত খাইয়া বের হইয়া গেছি।’ তাদের সঙ্গে থাকা আরেকজন বলেন, ‘সেমাই, পিঠা এগুলা কিছুই করতে হারি নাই টেকার লেইগা।’

তারা বলছেন, করোনার কারণে এবার আরও বেশি কষ্ট হয়ে গেছে। সাধারণ সেমাই কিনে আনতে পারেননি অনেকে। এর মধ্যে বন্যার ভয়াবহতা তো আছেই।

আরেকটু এগিয়ে কাওরান বাজারের কাঁচা বাজারের গিয়ে দেখা যায়, এরকম আরও অনেকেই কোরবানির মাংসের জন্য ছুটে যাচ্ছেন। এই চিত্র সারা দেশে। মফস্বল শহরগুলোতে মাংস সংগ্রহের জন্য গ্রামে গ্রামে ঘুরে বেড়ান তারা।

#সংবাদ২৪/ঢাকা/এমসি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status