বৃষ্টিতে মোংলা বন্দরে বন্ধ পণ্য ওঠানামা, শহরেও জলাবদ্ধতা

বিজ্ঞাপন

বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় গভীর সঞ্চালণশীল মেঘমালার কারণে মোংলা সমুদ্র বন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। এর প্রভাবে মঙ্গলবার রাত থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিপাত বুধবার বিকেল পর্যন্তও অব্যাহত রয়েছে।

টানা বৃষ্টিপাতের কারণে মোংলা বন্দরে অবস্থানরত সার, কয়লা, ক্লিংকার, পাথর, গ্যাসসহ বিভিন্ন পণ্যবাহী ১৫টি বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজের মালামাল ওঠানামার কাজ বিঘ্নিত হচ্ছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাষ্টার কমান্ডার ফখরউদ্দিন বলেন, বৃষ্টিপাতের কারণে বন্দরে পণ্য বোঝাই-খালাস ও পরিবহণ কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে বৃষ্টি কমলে পুনরায় কাজ শুরু হবে। কারণ বৃষ্টিতে সার ও ক্লিংকার পণ্য খালাস করা যায় না। পানি লাগলে এ সকল পণ্য নষ্ট হয়ে যায়।

এদিকে একটানা ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে মোংলা পৌর শহরের পূর্ব কবরস্থানের কাজী সামছুল হক সড়ক, মিয়াপাড়া, মোংলা কলেজের পূর্মুব পাশের জয়বাংলা এলাকা,মুন্সীপাড়াসহ শহরতলীর বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। পর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি আটকে ঢুকে পড়ছে ঘর-বাড়ীতে।

এদিকে বুধবার সকাল থেকেই পৌর মেয়র মো: জুলফিকার আলী ফোন করে বিভিন্ন এলাকার খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি জলাবদ্ধতা নিরসনের উদ্যোগও নিয়েছেন।

এছাড়া বৃষ্টিতে এখানকার বেশ সংখ্যক চিংড়ি ঘেরও তলিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। উপজেলা মৎস্য কর্মকতার্ মো: তৌহিদুর রহমান বলেন, বৃষ্টিতে উপজেলার ৬টি ইউনিয়ের প্রায় ৩শ চিংড়ি ঘের তলিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন চাষীরা।


সংবাদ২৪/মোংলা/এনামুল/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status