ভারতে গরুচোর সন্দেহে ৩ বাংলাদেশীকে পিটিয়ে হত্যা

বিজ্ঞাপন

মৌলভীবাজার: ভারতের করিমগঞ্জে গণপিটুনির শিকার হয়ে তিন বাংলাদেশী মারা গেছেন। এদের মধ্যে দুজনের বাড়ি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায়। বাকি একজনের পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল গাজী শহীদুল্লাহ সংবাদমাধ্যমকে তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে তারা হলেন- বড়লেখা উপজেলার তালিমপুর ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামের মৃত আছদ্দর আলীর ছেলে নুনু মিয়া (২৮) এবং একই গ্রামের আব্দুল মানিকের ছেলে জুয়েল আহমদ (২৭)। তারা সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা। তারা দুজনই পেশায় অটোরিকশাচালক।

ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, নিহত বাংলাদেশিরা শনিবার (১৮ জুলাই) রাতে সীমান্ত পেরিয়ে করিমগঞ্জের পাথরকান্দি অঞ্চলে বগরিজান চা-বাগানে এলাকায় যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন গরুচোর সন্দেহে তাদের ওপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে তারা মারধর শুরু হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে তাদের মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেছে ভারতীয় পুলিশ।

বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল গাজী শহীদুল্লাহ জানান, ‘ভারতে তিন বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর পেয়েছি। এর মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাদের বাড়ি বড়লেখা উপজেলায়। অপরজনের পরিচয় এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তাদের মৃতদেহ দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।’

নিহত দুজনের পরিচয় নিশ্চিত করে বড়লেখা উপজেলার তালিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ কান্তি দাস বলেন, ‘নিহত তিনজনের মধ্যে দুজনের বাড়ি বড়লেখা উপজেলার তালিমপুর ইউপির কাঞ্চনপুর এলাকায়। আমি তাদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, তারা দুজন গত শুক্রবার জুড়ীতে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এরপর তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না।’

তিনি আরও বলেন ‘সোমবার সকালে জুড়ী থানা পুলিশ আমাকে জানায় যে, তারা ভারতে খুন হয়েছেন। পরে নিহতদের ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে নিশ্চিত হয়েছি তাদের বাড়ি বড়লেখা উপজেলার তালিমপুর ইউনিয়নে।’

নিহত জুয়েলের বড় ভাই রুবেল বলেন, ‘শুক্রবার (১৭ জুলাই) এক ব্যক্তি তাদের বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। এরপর তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সোমবার সকালে জানতে পারি তারা ভারতে গিয়ে খুন হয়েছে। তবে তারা কেন আর কী কারণে ভারতে গেলেন সে ব্যাপারে কিছুই জানি না।’

#সংবাদ২৪/এইচএ 

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status