যুক্তরাষ্ট্রে কাগজপত্রবিহীন অভিবাসীদের আদমশুমারিতে অন্তর্ভুক্তি নিষিদ্ধ

বিজ্ঞাপন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধভাবে আসা কাগজপত্রবিহীন অভিবাসীদেরকে আদমশুমারিতে অন্তর্ভুক্ত করা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

হোয়াইট হাউজ প্রেস সচিবের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অবৈধভাবে আসা এই সব লোক যারা সরাসরিভাবে আমাদের আইন লংঘন করেছেন তাদের পক্ষে কংগ্রেসের প্রতিনিধিত্ব করার এবং রাজনৈতিক প্রভাব খাটানোর বিষয়টি আমাদের গণতান্ত্রিক নীতির বিচ্যূতির নামান্তর। খবর ভয়েস অব আমেরিকা’র।

প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প সাক্ষরিত একটি নির্বাহী আদশে কাগজপত্রবিহীন অভিবাসীদের ২০২০ সালের আদমশুমারিতে অন্তর্ভূক্ত করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হোয়াইট হাউজ প্রেস সচিবের বিবৃতিতে বলা হয়েছে অবৈধভাবে আসা এই সব লোক যারা সরাসরিভাবে আমাদের আইন লংঘন করেছে তাদের পক্ষে কংগ্রেসের প্রতিনিধিত্ব করার এবং রাজনৈতিক প্রভাব খাটানোর বিষয়টি আমাদের গণতান্ত্রিক নীতির বিচ্যূতির নামান্তর। এতে আরও বলা হয়েছে যে অবৈধ পরবাসীদের এখানকার জনসংখ্যার অংশ হিসেবে হিসাব করাটা বিকৃতভাবে উৎসাহ প্রদান করতে পারে যেমন যেসব রাজ্য ফেডারেল আইন লংঘন করছে তাদেরকে সম্ভাব্য পুরস্কৃত করা এবং তাতে আমাদের সরকার পদ্ধতিকে খর্ব করা হবে।

ট্রাম্প প্রশাসন এর আগেও কাগজপত্রবিহীন বিদেশীদের শনাক্ত করার জন্য আদমশুমারিকে ব্যবহার করেছে। ২০১৮ সালেই প্রশাসন বলছিল তারা ২০২০ সালের আদমশুমারিতে নাগরিকত্ব সংক্রান্ত একটি প্রশ্ন রাখবে কিন্তু ২০১৯ সালের ২৭ জুন সুপ্রিম কোর্ট এই পরিকল্পনার বিপক্ষে রায় দেয়। আদালত প্রশাসনের যুক্তিকে বানোয়াট বলেছে যে ভোট প্রদানের অধিকার সংক্রান্ত আইনের জন্য নাগরিকত্বের প্রশ্নটি গুরুত্বপূর্ণ।

আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এবারও ট্রাম্পের এই নির্বাহী আদেশ আদালতে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবে। বর্তমান আইনে বলা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের এলাকাগুলো বৈধ বাসিন্দা নয় মোট জনসংখ্যার ভিত্তিতে বরাদ্দ করা হয়।

#সংবাদ২৪/এইচএ 

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status