যেখানে সংরক্ষিত আইনস্টাইনের মস্তিষ্ক-গ্যালিলিওর আঙুল!

বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিখ্যাত কয়েকজন ব্যক্তির অঙ্গপ্রত্যঙ্গ আজও সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। সংরক্ষণের তালিকায় রয়েছে- আঙুল, মস্তিষ্ক, লিঙ্গ, দাঁত, চোখ এমনকি শেষ নিঃশ্বাসও। শুনতে অবাক লাগলেও এ তথ্য একেবারেই সত্য। এসব কোথায় এবং কীভাবে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে, তা জেনে নেয়া যাক আজকে-

গ্যালিলিও গ্যালিলির আঙুল সংরক্ষণ :

১৮তম শতাব্দীতে জ্যোতিবিজ্ঞানী গ্যালিলিও গ্যালিলির শরীর থেকে সরানো দুটি আঙুল এখনো সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। ইতালির ‘মিউজিয়াম অব দ্য হিস্ট্রি অব সায়েন্স’ জাদুঘরে রয়েছে তার বুড়ো ও মধ্যমা আঙুল। এছাড়া তার দাঁত ও শিরদাঁড়াও সংরক্ষণ রয়েছে।

১৬৪২ খ্রিস্টাব্দে মারা যান ইতালির এই বিজ্ঞানী। মৃত্যুর ৯৫ বছর পর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার সময় একদল বিজ্ঞানী গ্যালিলিওর মরদেহ থেকে বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ কেটে নেন। এরপর ১৭৩৭ সাল থেকে এসব সংরক্ষণ রয়েছে।

আইনস্টাইনের মস্তিষ্ক সংরক্ষণ:

বিজ্ঞানের দুনিয়ায় অ্যালবার্ট আইনস্টাইনের কথা চিরস্মরণীয়। ১৯০৫ সালে তার চারটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশের পর স্থান, সময়, শক্তি ও ভরের ব্যাপারে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টে যায়।

অসাধারণ মেধার এই মানুষটি সম্পর্কে কৌতূহলী হয়ে ওঠে বিশ্ব। মৃত্যুর পর তার মস্তিষ্ক নিয়ে গবেষণাও চলে।

১৯৫৫ সালে আইনস্টাইনের মৃত্যুর পর তার মস্তিষ্ক আলাদা করে এর একটি বড় অংশ সংরক্ষণ করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক ও গবেষক টমাস হার্ভে।

গবেষণার জন্য তিনি আইনস্টাইনের মস্তিষ্কের ২৪০টি টুকরো করেছিলেন। তার কিছু টুকরো সংরক্ষণ করা রয়েছে ওয়াশিংটনের ন্যাশনাল মিউজিয়াম অব হেলথ অ্যান্ড মেডিসিনে। বাকি অর্ধেক রয়েছে ফিলাডেলফিয়ার একটি জাদুঘরে।

আইনস্টাইনের চোখও সংরক্ষণ করেছিলেন ওই চিকিৎসক। তার দুটি চোখ সংরক্ষিত রয়েছে নিউ ইয়র্ক সিটির একটি জাদুঘরে।

১৮৭৯ সালে জার্মানির উলমা শহরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন আইনস্টাইন। তিনি নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন।

নেপোলিয়নের গোপনাঙ্গ সংরক্ষণ :

পরাক্রমশালী ব্যক্তি হিসেবে ফরাসি সম্রাট নেপোলিয়নের খ্যাতি বিশ্বজুড়ে। ১৮২১ সালে সেন্ট হেলেনা দ্বীপে মারা যান তিনি। এসময় তার চিকিৎসক মরদেহ ময়নাতদন্ত করার সময় গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গসহ গোপনাঙ্গও কেটে নেন। ১৯৬৯ সালে ২৯০০ ডলারে যুক্তরাষ্ট্রের একজন ইউরোলজিস্ট সেটি কিনে নিয়েছিলেন। ১৯২৭ সালে নিউ ইয়র্কের ‘মিউজিয়াম অব ফ্রেঞ্চ আর্ট’-এর প্রদর্শনীতে নেপোলিয়ানের গোপনাঙ্গ রাখা হয়েছিল।

থমাস এডিসনের শেষ নিঃশ্বাস সংরক্ষণ :

মার্কিন বিজ্ঞানী থমাস এডিসনের শেষ নিঃশ্বাস সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। শুনতে অবাক লাগলেও নিঃশ্বাস সংরক্ষণের সেই টিউবটি এখনো রয়েছে।

জনশ্রুতি আছে, জীবনের শেষ সময়ে হাসপাতালে থমাস এডিসনের সঙ্গে তার ছেলেকে থাকতে বলা হয়েছিল। এ সময় থমাসের ব্যবসার অংশীদার অটোমোবাইল ব্যবসায়ী হেনরি ফোর্ড একটি টেস্ট টিউব দিয়েছিলেন থমাসের ছেলেকে।

বলা হয়েছিল- শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগের সময় টেস্ট টিউবটি যেন থমাসের মুখে ধরা হয়। ছেলে তাই করেছিলেন। ১৯৩১ সালে মারা যাওয়ার সময় সেই টিউব বাবার মুখে ধরে শেষ নিঃশ্বাস সংরক্ষণ করেছিলেন। টিউবটি আজও মিশিগানের হেনরি ফোর্ড মিউজিয়ামে রাখা আছে।

সূত্র : সাইন্স এলার্ট

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status