রাশিয়ার টিকা নিয়ে অনিয়ম, চিকিৎসা কর্মকর্তার পদত্যাগ

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে রাশিয়ার তৈরি টিকা নিয়ে গুরুতর অনিয়মের অভিযোগ তুলে পদত্যাগ করেছেন দেশটির এক শীর্ষ চিকিৎসা কর্মকর্তা পদত্যাগ করেছেন।

রাশিয়ার টিকা ‘স্পুটনিক ৫’ তৈরিতে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নৈতিকতার গুরুতর লঙ্ঘন হয়েছে বলে অভিযোগ আনেন অধ্যাপক ডা. আলেক্সান্ডার চুচালিন।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এথিকস কাউন্সিল বা নৈতিকতাবিষয়ক পরিষদ থেকে পদত্যাগ করেছেন চুচালিন।

মঙ্গলবার সবার আগে করোনা প্রতিরোধের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

তিনি দাবি করেন, ভ্যাকসিনটির কার্যকারিতা প্রমাণ হয়েছে এবং স্থিতিশীল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করেছে। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা শেষেই ভ্যাকসিনটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

তবে এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও কানাডা। একইভাবে জার্মানি, স্পেন ও ফ্রান্সের বিজ্ঞানীরাও রাশিয়ার এই ভ্যাকসিন নিয়ে সতর্কতা দিয়েছেন।

যে দ্রুততার সঙ্গে রাশিয়া নিজেদের ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে, তাতে বিষ্ময় প্রকাশ করে তারা।

তবে এবার রাশিয়ার ভেতর থেকেই এই টিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠল। ‘স্পুটনিক ৫’ তৈরিতে যুক্ত মস্কোর গ্যামালিয়া রিসার্চ সেন্টারের আলেক্সান্ডার গিন্টসবার্গ এবং দেশটির শীর্ষ ভাইরোলজি বিশেষজ্ঞ সের্গেই বরিসেভিচের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেন ডা. চুচালিন।

শ্বাসতন্ত্রের এই চিকিৎসক জানান, টিকা তৈরিতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নিয়মনীতির তোয়াক্কা করেননি এ দুই চিকিৎসক।

ওই দুই বিশেষজ্ঞের উদ্দেশে চুচালিন বলেন, রুশ সরকারের সব নিয়মনীতি কি আপনারা মেনেছিলেন? আন্তর্জাতিক বিজ্ঞানী মহলের মতামত নিয়েছেন? নেননি।

ডা. চুচালিন বলেন, এটা ঠিকভাবে করা হয়নি। নৈতিকভাবে চিকিৎসাবিজ্ঞানের নীতি ভঙ্গ করা হয়েছে।


সংবাদ২৪/এসডি

বিজ্ঞাপন

Source দেশ রূপান্তর

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status