সাহাবুদ্দিন মেডিকেল হাসপাতালের এমডি ফয়সাল গ্রেফতার

বিজ্ঞাপন

ঢাকা: রাজধানী ঢাকার গুলশানের সাহাবউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফয়সাল আল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। সোমবার (২০ জুলাই) ফয়সাল আল ইসলামকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

করোনা পরীক্ষার সরকারি অনুমোদন না থাকা স্বত্বেও করোনা পরীক্ষা করানো এবং করোনা নেগেটিভ রোগীকে ইচ্ছাকৃতভাবে হাসপাতালে ভর্তি রেখে মোটা অঙ্কের টাকা আদায়ের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার (২০ জুলাই) সন্ধ্যয় এমডি ফয়সালসহ সহকারী পরিচালক আবুল হাসনাত ও ইনভেন্টরি অফিসার শাহরিজ কবিরের নামে গুলশান থানায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়। হাসপাতালটিতে অভিযান চালানোর সময় মামলার অপর দুই আসামিকেও গ্রেফতার করেছিলো র‍্যাব।

রোববার (১৯ জুলাই) দুপুরে অভিযুক্ত সাহাবউদ্দিন মেডিকেলে অভিযান শেষে র‍্যাব জানায়, হাসপাতালটি করোনা নেগেটিভ ব্যক্তিকে করোনা পজিটিভ বলে ভর্তি রেখেছিল এবং মোটা অঙ্কের টাকা বিল করছিল। এছাড়া এই হাসপাতালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও সরকারের অনুমোদনহীন বেশকিছু টেস্টিং কিট পাওয়া গেছে। সরকারের অনুমোদন ছাড়াই তারা অ্যান্টিবডি করোনা টেস্ট করছিল। অন্যদিকে পিসিআর পরীক্ষার অনুমতি থাকলেও তাদের আরটি-পিসিআর মেশিন ছিল না। তা সত্ত্বেও প্রতিটি করোনা টেস্টের জন্য তিন হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত নিচ্ছিল সাহাবউদ্দিন মেডিকেল হাসপাতাল কতৃপক্ষ।

হাসপাতালটির অপারেশন থিয়েটারে ১০ বছর আগের মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল সামগ্রী পাওয়া গেছে বলেও জানায় র‍্যাব। এসব অভিযোগে হাসপাতালটির দুই কর্মকর্তাকে গতকালই আটক করে র‌্যাব। ফার্মেসিতে মেয়াদউত্তীর্ণ ওষুধ থাকায় দুই লাখ টাকা জরিমানা এবং হাসপাতালটি সিলগালা করার রায় দেওয়া হয়।

এদিকে ফয়সাল আল ইসলামকে গ্রেফতারের দিন (সোমবার) র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম জানান, হাসপাতালটি স্বয়ংসম্পূর্ণ। তাছাড়া রোগীদের সরাতে হলেও কিছু সময় লাগবে। সে কারণে হাসপাতালটি এখন বন্ধ করা ঠিক হবে না। তাদের কাগজপত্র ঠিক করার জন্য সময় দেওয়া হবে। তবে সেই সময়ের মধ্যে কাগজপত্র ঠিক না করলে ও অনিয়ম বন্ধ না করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

#সংবাদ২৪/এইচএ

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status