সুশান্তের ৫টি ডায়েরি পড়ছে মুম্বাই পুলিশ

বিজ্ঞাপন

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গলায় ফাঁস দেওয়ায় শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে তার। পাশাপাশি, পোশাগত শত্রুতাও একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না মহারাষ্ট্র প্রশাসন। যেহেতু ছয় মাসে ৭টি ছবি তার হাত থেকে চলে গেছে।

অবসাদ না কাজের অভাব আত্মহত্যা করলেন সুশান্ত, এর উত্তর খুঁজতে তার ফ্ল্যাট থেকে ৫টি ডায়েরি হেফাজতে নিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। যা পড়ে জানার চেষ্টা চলছে, শেষ দিকে কতটা কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন ‘কাই পো চে’ অভিনেতা।

সেই সঙ্গে খতিয়ে দেখা সুশান্তের কল লিস্ট। শেষ ১০ দিন অভিনেতা যাদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন তাদের তালিকা বের করছে প্রশাসন। খুব শিগগিরিই জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে ডাকা হবে তাদের বলে জানা গেছে। যদিও ইতিমধ্যই পুলিশ  অভিনেতার শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’র পরিচালক মুকেশ ছাবরা, ঘনিষ্ঠ বন্ধু বিকাশ গুপ্তা এবং বাঙালি প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অভিনেতার ভাই এবং পাটনার বিজেপি বিধায়ক নীরজ কুমার সিংহ ইতিমধ্যেই সুশান্তের মৃত্যু আত্মহত্যায় না পেশাগত চাপের বিষয়টি খতিয়ে দেখার আবেদন জানিয়েছেন। এরপরই পুলিশ আরও বেশি তৎপর হয়ে উঠে।

বুধবার অভিনেতার অবসাদের জন্য বলিউডে স্বজনপ্রীতিকে দায়ী করে বিহারের মজফফরপুর জেলা আদালতে বলিউডের চার তারকা সালমন খান, করন জোহর, একতা কাপুর, সঞ্জয় লীলা বানশালীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন সুধীর কুমার ওঝা নামে এক আইনজীবী।

সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই আইনজীবীর দাবি, সুশান্তের কাছ থেকে শুধু সাতটি ছবি কেড়ে নেওয়া হয়েছিল তাই-ই নয়, তার একাধিক ছবি আজও মুক্তি পায়নি। এই সব ঘটনার চাপ দিনের দিনের পর দিন নিতে পারেননি মাত্র ৩৪ বছর বয়সী অভিনেতা। এবং এই ঘটনাগুলোই তাকে আত্মহননের মতো চরম পথ বেছে নিতে বাধ্য করেছে।

একই বিষয় নিতে সম্প্রতি টুইট করেছেন কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম। তিনিও একই প্রশ্ন তুলেছেন, সুশান্তের মতো প্রতিভার হাত থেকে কী করে সাতটি ছবি চলে যায়, বলিউডের আসল চেহারা কি এতটাই ভয়াবহ!


সংবাদ২৪/এসডি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status