সেই লাইভ ভিডিওটি সরিয়ে নিলেন মামুনুল

বিজ্ঞাপন

‘ইসলাম অনুযায়ী স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে প্রয়োজনে সীমিত পরিসরে সত্য গোপন করারও অবকাশ রয়েছে’- বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে এমন বক্তব্য দেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক।

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। অনেকে এটি নিয়ে হাস্যরসও করেন। এমতাবস্থায় ফেসবুক থেকে ভিডিওটি সরিয়ে নেন সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত এ হেফাজত নেতা।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) মামুনুলের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে গিয়ে ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়নি। সবশেষ ফেসবুকে আরবি ভাষায় একটি স্ট্যাটাস দেন মামুনুল হক। এর বাংলা করলে দাঁড়ায়, ‘আল্লাহ আমাদের জন্য যা নির্দেশ করেছেন তা ছাড়া আর কিছুই হবে না। হে আল্লাহ আমাদের সমস্যা থেকে রক্ষা করুন এবং নিরাপদ করুন।’

ফেসবুক পেইজ থেকে ওই লাইভ ভিডিওটি সরিয়ে নেওয়ায় নতুন করে আবারও সমালোচনার মুখে পড়েছেন মামুনুল হক। তার নতুন পোস্টে অনেকে কমেন্ট করে জানতে চান, কেন ভিডিওটি সরিয়ে নেওয়া হলো?

প্রসঙ্গত, গত ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টে এক নারীসহ মামুনল হককে অবরুদ্ধ করেন স্থানীয়রা। পরে হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা সেখানে ব্যাপক ভাঙচুর করে তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান। রিসোর্টে নিজের সঙ্গে থাকা নারী তার ‘দ্বিতীয় স্ত্রী’ বলে দাবি করেন। দুই বছর আগে তাদের বিয়ে হয় বলেও ফেসবুকে জানান মামুনুল। যদিও পরবর্তী সময়ে এটি নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

বৃহস্পতিবার ফেসবুকের ওই লাইভে মামুনুল হক বলেন, ‘আমি একাধিক বিয়ে করেছি। ইসলামী শরিয়ত অনুযায়ী ও বাংলাদেশের আইনে একাধিক বিয়ের ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। একজন পুরুষ চারটি বিয়ে করতে পারেন। আমি চারটি বিয়ে করলে কার কী?’

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status