সভ্য ও শিক্ষিতদের জন্য ‘লকডাউন’: এ দেশে তা অসম্ভব

বিজ্ঞাপন

লক ডাউন মডেল এটি কি আমাদের মত দেশের জন্য প্রযোজ্য? লক ডাউন সেই দেশেই সম্ভব যেই দেশ অর্থের দিক দিয়ে ধনী, যেই দেশের সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় দৃঢ় এবং দক্ষ এবং একই সাথে মানবিক, যেই দেশের মানুষ আইন মানে এবং সভ্য ও শিক্ষিত।

আমাদের দেশের একটি বড় অংশ মানুষ দিন আনে দিন খায়। তাদেরকে লক ডাউনের নামে কিভাবে ঘরে রাখবেন? এখন আবার রোজা এসে গিয়েছে। রোজা মানে পুরুষরা মসজিদে গিয়ে তারাবীহ বা খতমে তারাবি পরবে। পাকিস্তানের ইমাম সম্প্রদায় ইতিমধ্যেই লক ডাউনের বিরুদ্ধে একাট্টা হয়েছে এবং মসজিদে গিয়ে তারাবীহ পড়ার ঘোষণা দিয়েছে। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানিজেশন এবং পাকিস্তান সরকার আশংকা করছে এই কারণে ম্যাসিভ করোনার বিস্তার এবং এর ফলে ব্যাপক প্রাণহানির।

বাংলাদেশেও হয়ত তাই হবে। আবার মানুষদের অসচেতনতার কারণেও মানুষ লক ডাউনে থাকতে চায় না। বাংলাদেশ কিংবা পাকিস্তান কেন? স্বয়ং আমেরিকাতেও লক ডাউনের বিরুদ্ধে আন্দোলন জোরদার হচ্ছে। লস ভেগাসের মেয়র ইতিমধ্যেই এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন সেখানকার ক্যাসিনোসহ সবকিছুই যেন খুলে দেওয়া হয়।

আসলে করোনা পরিস্থিতিতে জীবন না জীবিকা আগে এই দুটি এখন দুই মেরুতে অবস্থান করছে। জীবন বাঁচাতে হলে লক ডাউন সফল করতে হবে। আবার লক ডাউন বেশিদিন চললে জীবিকা বন্ধ থাকার কারণে খাবারের অভাবে মানুষ মরবে।

ইতিমধ্যেই দেখতে পাচ্ছি আমাদের গার্মেন্টসের মালিকরা সরকারকে চাপ দিচ্ছে সীমিত আকারে হলেও গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিগুলো যেন খুলে দেওয়া হয়। বাংলাদেশে করোনার বিস্তারে গার্মেন্টস মালিকদেরও জোরালো ভূমিকা আছে। এর আগেও ইন্ডাস্ট্রি খোলার নামে কর্মীদের যেভাবে ঢাকায় এনেছেন আবার বন্ধ ঘোষণা করে যেভাবে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়েছেন তাতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

এছাড়া কর্মীদের বেতন না দিয়ে প্রতিদিনই কর্মীদের রাস্তা অবরোধ চলছে। ৩০ বছর ধরে এই কর্মীদের উপর দাঁড়িয়ে তারা বাড়ি গাড়ি ও বিদেশে অর্থ পাচার করে ফুলে ফেঁপে উঠেছেন। কর্মীদের কয়েকমাস বেতন দিয়ে চালিয়ে যাওয়ার এইটুকু সক্ষমতা নিশ্চয়ই মালিকদের আছে কিন্তু সেই আত্মাটা তাদের নেই।

এইসব কিছুর কারণে আসলে লক ডাউন কার্যকরী হবে না। আর বিকল্প কোন মডেলও আমাদের জানা নেই। তাই লক্ষলক্ষ মানুষের মড়ক সম্ভবত আসন্ন।

লেখক: অধ্যাপক- পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।


সংবাদ২৪-এ প্রকাশিত প্রতিটি লেখার বিষয়বস্তু, ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ও মন্তব্যসমুহ সম্পূর্ণ লেখকের নিজস্ব।
প্রকাশিত সকল লেখার বিষয়বস্তু ও মতামত পত্রিকার সম্পাদকীয় নীতির সাথে সম্পুর্নভাবে মিলে যাবে 
এমন নয়। লেখকের কোনো লেখার বিষয়বস্তু বা বক্তব্যের যথার্থতার আইনগত বা অন্যকোনো দায় 
কর্তৃপক্ষ বহন করতে বাধ্য নয়।

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status