করোনা থেকে আপনার সন্তানকে যেভাবে নিরাপদ রাখবেন

বিজ্ঞাপন

করোনা ভাইরাস নিয়ে সারা বিশ্ব উদ্বিগ্ন। এখন পর্যন্ত বয়স্করা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও শিশু আক্রান্ত হওয়ার খবরও পাওয়া গেছে। পরিবারের সদস্যদের উদ্বেগের সাথে শিশুমনেও উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বাড়ছে। আর এই ভাইরাস থেকে শিশুরা ঝুঁকিমুক্ত নয়।

সে জন্য আপনার সন্তানকে করানো সম্পর্কে সঠিক ধারণা দেয়ার পাশাপাশি তাকে সতর্ক করাও দরকার। কিন্তু শিশুকে কিভাবে বোঝাবেন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে? তার মনে যে যদি ভয় ঢুকে থাকে সেটা কিভাবে দূর করবেন?

তার জন্য আপনার সন্তানকে সবার আগে আশ্বস্ত করতে হবে। তাকে বুঝিয়ে বলা যে ‘তোমার যখন ঠাণ্ডা লাগে, পেট খারাপ হয়, বমি হয় এই ভাইরাসটি সেরকম। তুমি সেরকম কিছু অনুভব করলে আমাদের বলবে’ তোমার কিছুই হবেনা। তবে এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে শিশুর বয়সের উপর।

করোনা থেকে আপনার সন্তানকে কিভাবে নিরাপদ রাখবেন?

শিশুরা বন্ধুদের সাথে খাবার ও পানীয় আদানপ্রদান করে। এখানে তাকে এই রোগ কিভাবে ছড়ায় সেটি বুঝিয়ে দিতে হবে। তাকে সত্যটা বুঝাতে হবে যে এর মাধ্যমে ভাইরাস ছড়াতে পারে। তবে সে যেন এর থেকে কোনো রকম বৈষম্য শিখতে না পারে। তাকে এটা বুঝাতে হবে যে এই শেয়ারিং তার বন্ধুও যাতে না করে সে যেন তাকে বুঝিয়ে বলে।

ডা: পুনম কৃষ্ণা যুক্তরাজ্যের একজন চিকিৎসক। তিনি বলেন- ‘অভিভাবকদের উচিৎ শিশুদের সাথে বিষয়টি নিয়ে খোলাখুলি আলাপ করা। নতুবা সে স্কুলে বা বন্ধুদের কাছ থেকে ভুল তথ্য পাবে।’

করোনা থেকে আপনার সন্তানকে কিভাবে নিরাপদ রাখবেন?
প্রয়োজনে শিশুকে মাস্ক পরান।

ছয়-সাত বছর বয়সী বা তার নিচে যাদের বয়স তাদের ক্ষেত্রে হল তারা যা শুনবে তাতেই বিচলিত হবে। কারণ তাদের বাবা-মায়েরা আশ-পাশেই বিষয়টি নিয়ে আলাপ করছে। এটা তাদের জন্য ভীতিকর হতে পারে। প্রথমত ছোট শিশুদের ক্ষেত্রে তাদেরকে আশ্বস্ত করুন। আপনি হয়ত জানেন না কী হতে যাচ্ছে, কিন্তু তাদের বলুন ‘সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে’।

শিশুকে পরিচ্ছন্ন থাকতে বলুন। ছোট শিশুরা খুব কৌতূহলী হয়। তারা সবকিছু ছুঁয়ে দেখে। সে যেন তার পরিচ্ছন্ন থাকার প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পারে। তাকে বুঝাতে হবে যে অপরিচ্ছন্ন থাকলে এই রোগ হতে পারে। এ ক্ষেত্রে সতর্কতা বড়দের মতো তাদেরও সমান। যেমন মাস্ক ব্যবহার করা, হাত ধোয়া, হ্যান্ডসেক না করা, কেউ হাঁচি দিলে দূরত্ব বজায় রাখা, ইত্যাদি।

আমাদের কারো পক্ষে নিশ্চিত করে বলা সম্ভব না যে শিশুরা এতে আক্রান্ত হবে কিনা। তার জন্য অকারণে ঝুঁকি সম্পর্কে দুঃশ্চিন্তা না করে আশাবাদী থাকাই ভাল। তবে আগাম সতর্কতা হিসেবে রোগ প্রতিরোধ সম্পর্কে তাদের বুঝানো দরকার। তাকে বাইরে খেলাধুলায় কম পাঠান। যত সম্ভব নিজের কাছে ব্যস্ত রাখুন। তাকে সময় দিন।

করোনা থেকে আপনার সন্তানকে কিভাবে নিরাপদ রাখবেন?
শিশুকে নিজে সময় দিন।

তাদের বাস্তবসম্মত পদক্ষেপগুলো সম্পর্কে ধারণা দিতে হবে। যাতে করে তারা নিজেদের আক্রান্ত হওয়া থেকে বাঁচাতে পারে এবং একই সাথে এমন অনুভব করে যে এর মাধ্যমে সে নিরাপদ এবং বিষয়টি তার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাকে বুঝাতে হবে যে সে নিজে সতর্ক থাকলে এই ভাইরাস তাকে আক্রান্ত করতে পারবে না। গল্পের ছলে তাকে এর প্রতিরোধ ব্যবস্থা সম্পর্কে অবহিত করা উত্তম উপায়।

কিশোর বয়সীরা এখন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও বন্ধুদের কাছ থেকে ভুল তথ্য পায়। ভুয়া খবর থেকে সতর্ক থাকুন। ঘরে মধ্যে আলোচনা করলে এই খবরের সত্যতা বুঝে সেটাকে টপিক করুন। খেয়াল রাখবেন যে আপনার আলোচনায় আপনার শিশু কতটা ভয় পাচ্ছে। কারণ শিশুদের উদ্বেগের অন্যতম উৎস হতে পারে তাদের অভিভাবকরাই। তাদের থেকে তারা নানা ধরনের আলাপচারিতা শোনে এবং সেখান থেকে নিজেদের তথ্য সংগ্রহ করে।

আপনার শিশু যদি খুব মিশুক প্রকৃতির হয়ে থাকে তাহলে তাকে সাময়িক স্কুল থেকে বিরতও রাখতে পারেন। কারণ আপনি যতটা সতর্ক অন্য অভিভাবক ততটা সতর্ক নাও হতে পারে। যার ফলে ওই শিশুর থেকে আপনার শিশু ভুল তথ্য বা অবচেতনে এমন কিছু করতে পারে যা করোনার ঝুঁকি বাড়িয়ে দিবে।

শিশুদের জন্য বিবিসিকে এমন পরামর্শ দিয়েছেন ডা: পুনম কৃষ্ণা ও ডা: উলফসন।


সংবাদ২৪/মাহমুদ

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status