অবশেষে খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার

বিজ্ঞাপন

ঢাকা: মধ্যপ্রাচ্যের পরে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি কর্মী রয়েছে মালয়েশিয়াতে। নানা জটিলতায় ১৬ মাস ধরে দেশটিতে কর্মী পাঠাতে পারছেনা বাংলাদেশ। তবে নতুন করে বাংলাদেশের অন্যতম বড় শ্রমবাজার মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে কুয়ালালামপুর-ঢাকা চিঠি চালাচালি আর দফায় দফায় বৈঠকের পর অবশেষে বাংলাদেশ থেকে আবার কর্মী নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে মালয়েশিয়া। এই উদ্যোগ সফল করতে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি দুদেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ঢাকায় বৈঠক করবেন বলে বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে।

এর আগে গেল রোববার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদও সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, মালয়েশিয়ায় এবার শূন্য অভিবাসন ব্যয়ে কর্মী পাঠানো হবে। আর মালয়েশিয়ার প্রতিনিধি দলের কাছে এ প্রস্তাব রাখার কথাও জানিয়েছিলেন তিনি।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার অনলাইন সংবাদমাধ্যম মালয়েশিয়াকিনিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী এম কুলাসেগারানও শিগগিরই বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়ার বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেখানকার সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার খুলতে চলতি মাসেই ঢাকায় বৈঠক করবেন তারা।

জানা যায়- মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠাতে ২০১২ সালে জি টু জি পদ্ধতি, তারপর জি টু জি প্লাস, আবার জি টু জি এমন নানা পরিকল্পনা নিয়ে প্রায় পনেরো লাখ শ্রমিকদের অনলাইন নিবন্ধন করে, তা অকার্যকর হয়ে যায়। এর ফলে দেশটিতে আগে থেকে কর্মরত শ্রমিকেরাও অবৈধ হতে থাকে। ধরপাকড় ও জেল জরিমানায় বেকায়দায় পড়েন কর্মীরা।

এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে বেসরকারি জনশক্তি রপ্তানিকারকরা অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয় করেই কর্মী পাঠিয়ে ও প্রতারণা করে দুদেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটায়। দুদেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় গেল সাত বছর ধরে শৃঙ্খলা আনার চেষ্টা করলে তা সম্ভব হয়নি। এমতাবস্থায় দেশটিতে সরকার পরিবর্তনের পর জনশক্তি রপ্তানিতে এমন স্বেচ্ছাচারিতা আর দুর্নীতির সন্ধান পেলে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে শ্রমবাজার বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া সরকার।

এরপর দেশটির নতুন সরকারের সঙ্গে আবার আলোচনা শুরু করে সরকার। এবার নতুন করে কর্মী পাঠানোর বিষয়ে একমতে পৌঁছেছে দুদেশ। এ নিয়ে গেল বছরের ৬ নভেম্বর মালয়েশিয়ায় উভয় দেশের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সে বৈঠকেই ঠিক হয়েছিল, পরের যৌথ কারিগরি বৈঠক হবে ঢাকায়। সে লক্ষ্যে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বৈঠক করতে ঢাকায় আসবেন। ২৪ ফেব্রুয়ারি দুদেশের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

সংবাদ২৪/এমকে

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status