লকডাউনে মা দিবসে অবাক করে দিন মা’কে

বিজ্ঞাপন

মা দিবসে মায়ের সাথে সময় কাটানোর সুযোগ আমাদের কমই থাকে। বিশেষ করে কর্মজীবীদের তো দিন শেষ এসে মাকে পাওয়া ছাড়া উপায় থাকে না। আর মা যদি দূরে থাকেন তাহলে তো আর দেখা করারও সুযোগ নেই। তবে এবারের মা দিবসে পুরোটা সময় মায়ের সাথে থাকার সুযোগ।

করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনে মায়ের কাছে সময় কাটাতে পারছেন অনেকেই। হয়তো অন্যান্যবারের মত মায়ের জন্য বিভিন্ন উপহার কেনা যাচ্ছে না, তবে এবারের মা দিবসটিও মায়ের জন্য বিশেষভাবে পালন করা যাবে ঘরে বসেই।

  • মায়ের সাথে বেশি সময় কাটান

সন্তানদের কাছ থেকে মায়েদের চাওয়া থাকে একেবারেই অল্প। তাদের কাছ থেকে সময় পেলেই মায়েরা খুশি হয়ে যান, আনন্দিত থাকেন। মায়ের সাথে একসাথে থাকা হলে অন্য দিনের চাইতে এ মায়ের পাশে বেশি থাকার চেষ্টা করুন। নিজের ব্যক্তিগত কাজ, হোম অফিস সবকিছুই তো প্রতিদিনের ব্যস্ততার একটি অংশ। একটা দিন আলাদাভাবে মায়ের জন্য বেশি সময় বরাদ্দ রাখা যেতেই পারে। মায়ের কাছ থেকে দূরে থাকলে ভিডিও কলে কথা বলুন লম্বা সময়ের জন্য। একসাথে ছোটবেলার স্মৃতিচারণ করুন, হাতের টুকটাক কাজ করার সময়ে কথা বলুন। দেখবেন দুজনের মনই ভালো হয়ে গেছে।

 

  • বাগানের ফুলেই উপহার

লকডাউনের এ সময়ে ইচ্ছা থাকলেও মায়ের জন্য কোন কিছু কেনা নিরাপদ হবে না। সেক্ষেত্রে দিনটি একেবারে খালি হাতে শুরু করতে না চাইলে নিজের শখের বাগানের ফুল তার হাতে তুলে দিয়েই তাকে শুভেচ্ছে জানাতে পারেন।

  • মায়ের জন্য রাঁধুন

মায়ের হাতের রান্নাই নিশ্চয় খাওয়া হয় প্রতিদিন, আজকের দিনে মায়ের জন্য আপনিই রেঁধে ফেলুন তার পছন্দের কোন খাবার। খাবারের স্বাদ যেমনই হোক না কেন, তার পছন্দের খাবার নিজ হাতে তৈরি করে পরিবেশন করার মাঝে আলাদা ভালোবাসা ফুটে ওঠে। সাথে যদি সম্ভব হয় বেক করে নিতে পারেন ছোট একটি কেকও। ঘরোয়া পরিবেশে, ঘরে মায়ের সাথে নিজ হাতে তৈরি খাবার খাওয়ার আবেদনটাই ভিন্ন।

  • তার কাজে সাহায্য করুন

যতই পরিকল্পনা কিংবা আয়োজন করুন না কেন, মায়েদের প্রতিদিনের ব্যস্ততা থেকে তো কোন অবসর নেই। ঘরে-বাইরে সবখানেই প্রতিদিনের নিয়ম মাফিক ব্যস্ততা তাদের সঙ্গী। এই দিনটিকে মায়ের জন্য বিশেষ করতে চাইলে তার কাজে সাহায্য করুন, কাজের ঝক্কি-ঝামেলা থেকে জোর করে একদিনের জন্য দূরে রাখুন। সেটাই হয়ত তার জন্য অনেক বড় কোন উপহারের চাইতে আনন্দদায়ক হবে।

  • সিনেমা দেখুন একসাথে

মায়ের পছন্দের সিনেমা কোনটি? রাজ্জাক কিংবা সালমান শাহের কোন সিনেমাটি তার সবচেয়ে প্রিয়। কিংবা বলিউডের কোন নায়িকার চুলের স্টাইল তার প্রিয় ছিল? আমরা অনেকেই কিন্তু মায়ের এমন ছোট অথচ অর্থবহুল বিষয়গুলো সম্পর্কে জানিনা। আজকের দিনে তার সাথে তার প্রিয় সিনেমাটি দেখতে বসুন। তার প্রিয় সিনেমাটিও তার জন্য ভালোলাগার একটি উপকরণ।

  • স্মৃতিচারণ হোক মায়ের সাথে

বাসার ফটো অ্যালবামটি শেষ কবে হাতে নিয়ে দেখা হয়েছে মনে পড়ে কি? বহুদিনের ছবি ও স্মৃতি যত্ন করে তুলে রাখা পর্যন্তই, তাদের আর নেড়েচেড়ে দেখার সময় হয় না। মা দিবসে মায়ের সাথে বসে অ্যালবামের ছবিগুলো দেখতে দেখতে পুরনো দিনের স্মৃতিগুলো ঝালাই করে নিতে পারেন। মায়ের স্কুল জীবন, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের ছবি, ঘটনা, তার প্রিয় মুহূর্তের স্মৃতিচারণের সাথে খুব দারুণভাবেই সময় কাটানো হবে। মায়ের ছেলেবেলায় ঘুরে আসুন এক সাথে।

#সংবাদ২৪/এমসি

বিজ্ঞাপন

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
Loading...
DMCA.com Protection Status